বাইক ও বাই সাইকেল সেক্টরের জন্য যা করা যেতে পারে !

বাংলাদেশ চাইলেও বিমান বানাতে পারবে না – কিন্তু বাইসাইকেল ও বাইক বানাতে পারবে । এখনও প্রতি বছর কোটি কোটি…… টাকার বাইক ও বাইসাইকেল আমদানি করা হয় । এই ২টি সেক্টরে প্রচুর জনবল লাগে এমন আমাদের দেশেই চাহিদা আকাশছোঁয়া – শুধু দেশের চাহিদা মেটাতে পাড়লেই মিলিয়ন মিলিয়ন ডলার সেভ হবে । দেশের টাকা দেশে থাকবে, দেশের মানুষ জব পাবে, অর্থনীতি একটা মজবুত ভিত্তি পাবে । আমি জানি আমার এই পোষ্ট সরকার/ বাণিজ্যমন্ত্রনালয় / শীল্পমন্ত্রনালয় পড়বে না । নিজের মাথায় ঘূড়ছে তাই পরামর্শ ২ টি আপনাদের সাথে শেয়ার করছি , ভাল লাগলে অবশ্যই পোষ্ট টি শেয়ার করবেন, আপনার শেয়ারের কারণে সরকার উদ্যোগ নিলে অবশ্যই দেশের মঙ্গল হবে ।

**********

১। বাইক ও বাইসাইকেল এর নতুন/পুরাতন সকল বিনিয়োগ এবং কারখানাকে আগামী ১৫ বছরের জন্য ট্যাক্স ফ্রি করে দেয়া ।

২। বাইক ও বাইসাইকেল (যন্ত্রাংশ বা সংযোজিত) আমদানিতে নতুন করে ১০০% ট্যাক্স অ্যাড করে দেশে উৎপাদিত বাইক ও বাইসাইকেল আগামী ১৫ বছরের জন্য ট্যাক্স ফ্রি করে দেয়া ।

*******

উপরের ২টা প্রস্তাব বাস্তবায়ন করলে এই সেক্টরে নতুন করে হাজার কোটি টাকার বিনিয়োগ আসবে, লাখ লাখ মানুষ নতুন জব পাবে । বিদেশী দেশী বাইক ও বাইসাইকেলের দাম বেড়ে যাবে আবোগ দেশী বাইক ও বাইসাইকেলের দাম কমে যাবে । দেশী বাইক ও বাইসাইকেল দেশের মার্কেট দখল করে নেবে । দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রপ্তানি করে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন সম্ভব হবে । যারা যারা একমত তারা দেশের স্বার্থে এই পোষ্ট শেয়ার করবেন প্লীজ ।

Copyright – Khandokar Robi
Founder and Managing Director
of BHABAN.com,  Pharmacyn, and BDDelivery .

DATED- AUGUST 06, 2020.

Share:

Leave a Comment